| |

Ad

জামালপুরে ওড়না প্যাচানো কিশোরীর মরদেহ উদ্ধার।মা দাবী করছে এটি হত্যা!

আপডেটঃ 6:35 pm | July 05, 2021

আসিফ বিল্লাহ (জামালপুর জেলা প্রতিনিধি):- জামালপুরে মুক্তি আক্তার (১৬) নামে এক স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। স্থানীয় একটি মক্তব ঘরে ওড়না দিয়ে ফাঁস দেওয়া অবস্থায় ঝুলছিল তার দেহ। এ ঘটনায় সহপাঠী ও প্রেমিক মিরাজকে দায়ী করেছে তার পরিবার। মুক্তি এবার এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিলেন।

গত সোমবার (৫ জুলাই) সকালে জামালপুর সদর উপজেলার মেষ্টা ইউনিয়নের চর মল্লিকপুর গ্রাম থেকে ওই স্কুলছাত্রীর লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।

মুক্তি ওই গ্রামের সৌদী প্রবাসী মিজানুর রহমান দুলুর চার সন্তানের মধ্যে দ্বিতীয় সন্তান। তিনি চাঁন্দের হাওড়া আলিমুদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ছিলেন।

নিহত মুক্তির মা পারভীন আক্তার জানান, সরিষাবাড়ি উপজেলা ভাটারা ইউনিয়নের চরহরিপুর গ্রামের রিপন মিয়ার ছেলে মিরাজের সাথে মুক্তি একই ক্লাসে পড়ত।

একসময় তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। গত ছয়মাস আগে মিরাজের সাথে মুক্তি পালিয়ে যায়। কয়েকদিন পর মুক্তিকে তাড়িয়ে দেয় মিরাজের পরিবার।

তারপর থেকে মুক্তি এ বাড়িতেই থাকত। গতকাল রাতে মুক্তির মোবাইলে স্থানীয় একটি ধানখোলাতে দেখা করার জন্য মিরাজের মেসেজ আসে।

এটা আমি দেখে ফেলেছিলাম। তারপর সে প্রস্রাবের কথা বলে বের হয়ে যায়। দীর্ঘ সময় অতিবাহিত হলে আমরা তাকে সর্বত্র খুঁজেও পাইনি।

সকালে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে মক্তব ঘরে গিয়ে তার ওড়না প্যাঁচানো ঝুলন্ত লাশ দেখতে পাই। ওই ছেলেই আমার মেয়েকে হত্যা করেছে। আমি ওই ছেলের বিরুদ্ধে মামলা করবো।

এ ব্যাপারে জামালপুর সদর থানার পুলিশের উপপরিদর্শক ( এসআই) আলমগীর মুনছুর বলেন, প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্টে লাশে কোনো ক্ষত বা দাগ দেখা যায়নি। তবে ময়না তদন্ত শেষে বলা যাবে এটা হত্যা নাকি আত্মহত্যা।