| |

Ad

নালিতাবাড়ীতে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন লেপ-তোষকের কারিগররা

আপডেটঃ 2:58 pm | December 04, 2017

সানী ইসলাম, নালিতাবাড়ী প্রতিনিধি: গারো পাহাড়ের পাদদেশে অবস্থিত শেরপুরের সীমান্তবর্তী নালিতাবাড়ী উপজেলায় শীতের আগমন বোধহয় একটু আগেই হয়। শীতের আগমনে উপজেলায় বেড়েছে লেপ-তোষকের কদর। বিভিন্ন দোকান ঘুরে দেখা গেছে, লেপ-তোষক বানানোর কাজে এখন ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন কারিগররা।
ক্রেতাদের আনাগোনায় জমজমাট হয়ে উঠেছে লেপ-তোষক তৈরির দোকানগুলো। তবে এসব তৈরি করতে তুলাসহ যেসব মালামালের প্রয়োজন হয় তার দাম এখন বেশ চড়া। সে কারণে খরচও বেড়েছে। মাঝারি আকারের একটি লেপ তৈরি করতে চার কেজি তুলার প্রয়োজন।
প্রতি কেজি তুলার দাম ১২০ টাকা। ১০ গজ কাপড়ের দাম ৩৫০ টাকা, সেলাই খরচ লাগে ২০ থেকে ৩০ টাকা। আর কারিগরের মজুরি লাগে ২৫০ টাকা। সব মিলিয়ে একটি লেপ তৈরি করতে এক হাজার টাকা খরচ হয়। সেটি বিক্রি হয় এক হাজার তিনশ’ টাকা থেকে এক হাজার পাঁচশ’ টাকা পর্যন্ত।
লেপ-তোষকের সেলাই শ্রমিক মজিদ মিয়া বলেন, ‘প্রতিটি লেপ কিংবা তোষক আমরা চুক্তি ভিত্তিক সেলাইয়ের কাজ করি। প্রতিটি লেপ ১০০-১১০ টাকা, তোষক ১২০-১৫০ টাকা, জাজিম ২৫০ টাকা থেকে ৩০০ টাকা সেলাই বাবদ মজুরী পেয়ে থাকি’।
লেপ-তোষক কারিগর মনিরুল বলেন, ‘শীতের সময় লেপ-তোষকের ব্যাপক চাহিদা থাকে। তাই আমাদের এই সময় সব চেয়ে বেশি ব্যস্ত সময় কাটাতে হয়। আর এই সময়েই আমাদের বিক্রি বেড়ে যায়’।