| |

Ad

গৃহকর্মী সাদিয়াকে হত্যার ঘটনায় গৃহকর্তা শাকিলকে আইনের আওতায় আনার দাবিতে শেরপুরে মানববন্ধন

আপডেটঃ 3:05 pm | November 08, 2020


মনিরুজ্জামান মনির ঃ- শেরপুর জেলার শ্রীবরদী উপজেলায় আওয়ামী লীগ নেতার স্ত্রীর শারীরিক নির্যাতনে শিশু গৃহকর্মী সাদিয়া (১০) কে নিহতের ঘটনায় গৃহকর্তা আহসান হাবিব ওরফে শাকিলকে আইনের আওতায় এনে ফাঁসির দাবিতে শেরপুরে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

৮ নভেম্বর রোববার দুপুরে শেরপুর জেলা শহরের নয়আনী বাজার এলাকার ডিসি গেট মোড়ে মানবাধিকার সংগঠন আমাদের আইন, শেরপুর জেলা শাখা এ মানববন্ধনের আয়োজন করে। আমাদের আইন শেরপুর জেলা শাখার সভাপতি নূর ই আলম এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক নাজমুল ইসলামের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, জাসদ জেলা শাখার সভাপতি মনিরুল ইসলাম, শেরপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মেরাজ উদ্দিন, সাংবাদিক মাসুদ হাসান বাদল, মানবাধিকার কর্মী মাহবুবুল আলম জাহাঙ্গীর, নূর ই জান্নাত, সাইফুল ইসলাম, শান্ত রায়, কৃষ্ণ ঘোষ, শাখাওয়াত হোসেন, কাকন সরকার প্রমুখ।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, গৃহকর্মী সাদিয়াকে নির্যাতন করে হত্যার দায় শুধু গৃহকর্ত্রী রুমানা জামান ঝুমুরের একার নয়। গৃহকর্তা আহসান হাবিব শাকিলও এ ঘটনার দায় এড়াতে পারেন না। কারণ আহসান হাবিব শাকিল প্রতিবাদ করলে হয়তো গৃহকর্মী সাদিয়াকে এমন করুণ পরিণতি ভোগ করতে হতো না।

আহসান হাবিব শাকিলের আশ্রয়-প্রশ্রয়েই তাঁর স্ত্রী রুমানা জামান ঝুমুর গৃহকর্মী সাদিয়াকে শারীরিক নির্যাতন করে হত্যা করেছেন। তাই এ ঘটনায় আওয়ামী লীগ নেতা আহসান হাবিব শাকিলকে আইনের আওতায় এনে তাঁকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি প্রদানের দাবি জানান তাঁরা। মানববন্ধনে শেরপুর প্রেসক্লাব, জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা, শেরপুর ইয়ং রিপোর্টার্স ইউনিটি, জাসদ, কমিউনিস্ট পার্টি, রক্ত সৈনিক, শেরপুর জেলা ইয়্যুথ রিপোর্টার্স ক্লাবসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক ও সামাজিক সংগঠন একত্মতা পোষণ করে। এব্যাপারে জানতে চাইলে শ্রীবরদী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, মামলাটি গুরুত্ব সহকারে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।

তদন্তে গৃহকর্তা শাকিলের সম্পৃক্ততা পাওয়া গেলে অবশ্যই তাঁকে আইনের আওতায় আনা হবে। উল্লেখ্য, আওয়ামী লীগ নেতা আহসান হাবিব শাকিলের স্ত্রী রুমানা জামান ঝুমুরের শারীরিক নির্যাতনে শিশু গৃহকর্মী সাদিয়া গুরুতর আহত হয়ে একমাস চিকিৎসাধীন থাকা অবস্থায় গত ২৩ অক্টোবর ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যায়।

নিহত সাদিয়া শ্রীবরদী পৌর শহরের মুন্সিপাড়া এলাকার ট্রলি চালক সাইফুল ইসলামের মেয়ে। এ ঘটনায় সাদিয়ার বাবা সাইফুল ইসলাম বাদী হয়ে রুমানা জামান ঝুমুরের বিরুদ্ধে শ্রীবরদী থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। গ্রেফতারকৃত আহসান হাবিব শাকিলের স্ত্রী রুমানা জামান ঝুমুর বর্তমানে শেরপুর জেলা কারাগারে হাজতবাস রয়েছেন।