| |

Ad

কেন্দুয়ায় চুরি ঠেকাতে গ্রাম পুলিশদের রাত জেগে পাহারা

আপডেটঃ 2:19 pm | January 11, 2020

সাইফুল আলম,কেন্দুয়া প্রতিনিধি:- নেত্রকোণার কেন্দুয়া উপজেলার গ্রামাঞ্চলে বিভিন্ন ধরনের চুরি বেড়ে যাওয়ায় রাত জেগে গ্রাম পুলিশদের পাহারা দিতে হচ্ছে। পাহারা শেষে অর্থাৎ রাত ভোর হলে সংশ্লিষ্ট এলাকার ইউপি সদস্যদের কাছ থেকে দায়িত্ব পালনের সত্যতার স্বাক্ষর আনতে হচ্ছে বলে জানা গেছে।,

সূত্রে জানা যায় গত ৯ জানুয়ারী বিকালে উপজেলার সকল গ্রাম পুলিশকে ডেকে এনে এ বিষয়ে মত বিনিময় করেন কেন্দুয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রাশেদুজ্জামান তিনি গ্রাম পুলিশদের উদ্দেশ্যে বলেন, আমরা জনগণের টাকায় কাজেই জনগণের জান মালের নিরাপত্তা দেওয়া আমাদের দায়িত্ব এবং কর্তব্য। ইদানিং হঠাৎ করেই বেড়ে গেছে।’

তাই আপনারা নিজ নিজ এলাকায় রাত জেগে পাহারা দিয়ে জনগণের সেবা দিন। আমরাও রাতে পুলিশ টহল বাড়িয়ে দিয়েছি। পুলিশ আপনাদের সহায়তা করবে। শনিবার উপজেলার মাসকা ইউনিয়নের কির্তনখোলা গ্রামের ইউপি সদস্যা হেলেনা আক্তারের স্বামী দুলাল মিয়া জানান, গ্রাম পুলিশ রাতে পাহারা দিয়ে ভোর রাতে আমার বাড়ী এসে স্ত্রীর স্বাক্ষর নিয়ে যান। ওসি সাহেবের এই উদ্দ্যোগকে আমরা সাধুবাদ জানাই।’

এদিকে বলাইশিমুল গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য শহিদুল ইসলাম বাচ্চু জানান, গেল সপ্তাহে আমাদের পাশাপাশি দুইটি গ্রামের ৭ বাড়িতে চুরিতে হয়েছে। এলাকায় হঠাৎ গরু চুরিসহ বিভিন্ন চুরি বেড়ে যাওয়ায় আমরা শঙ্কিত।’

গ্রাম পুলিশ দিলীপ দেবনাথ, রূপলাল রবিদাস, ফজলু রহমান, দফাদার হাবিবুর রহমান, বিজয় রবিদাস জানান, পুলিশ কর্তৃপক্ষের নির্দেশে চুরি ঠেকাতে প্রচন্ড শীতের মাঝেও আমরা রাত জেগে পাহারা দিচ্ছি।’

মাসকা ইউপি চেয়ারম্যান মোস্তাফিজুর রহমান খোকামনি গ্রাম পুলিশের রাত জেগে পাহারা দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ পাহারায় এলাকার চুরি অনেক কমে যাবে কেন্দুয়া থানার ওসি রাশেদুজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন’

জনগণের জান মালের নিরাপত্তায় আমরা নিয়োজিত। হঠাৎ চুরি বেড়ে যাওয়ায় আমরা বেশ কিছু পদক্ষেপ নিয়েছি। ইতিমধ্যে মাদকাসক্ত, জুয়াড়ি, ছিচকে চোরসহ বেশকিছু অপরাধীকে আটক করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। অপরাধ দমনে পুলিশি অভিযান অব্যাহত থাকবে।