| |

Ad

কেন্দুয়ায় বিএনপি পন্থী সবুজকে আওয়ামীলীগ থেকে বহিস্কারের দাবিতে মানববন্ধন

আপডেটঃ 3:12 pm | October 12, 2019

সাইফুল আলম,কেন্দুয়া প্রতিনিধি : নেত্রকোনার কেন্দুয়ায় বিএনপি পন্থী সবুজ মিয়াকে আওয়ামীলীগের নব ঘোষিত সভাপতির পদ থেকে বহিস্কারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। গতকাল শুক্রবার উপজেলার বিষ্ণুপুর এলাকায় এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

মানববন্ধনে স্থানীয় ওয়ার্ড আওয়ামীগের নেতৃবৃন্দ ও কর্মী সমর্থকরা উপস্থিত ছিলেন। মানববন্ধন শেষে সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুজ্জামান শেখ বলেন, কান্দিউড়া ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি করা হয়েছে বিষ্ণুপুর গ্রামের বিএনপি পন্থী সবুজ মিয়াকে। তিনি আওয়ামীলীগে একজন নতুন অনুপ্রবেশকারী।

তিনি বিগত দিনে কান্দিউড়া ইউনিয়ন বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য ছিলেন। পরে ওই ইউনিয়নের পুুুুনাঙ্গ কমিটি হলে তাতেও সবুজ মিয়া সদস্য হন। এখনো তার পরিবারের সবাই বিএনপির রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত।

তাকে এখন নিজের ওয়ার্ডে আওয়ামীলীগের সভাপতি মনোনীত করায় ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের ত্যাগী ও পরীক্ষিত নেতাকর্মীরা ক্ষুব্ধ হয়ে উঠেছে। তারা তাকে এই পদ থেকে বহিস্কারের দাবিতে একের পর এক কর্মসূচী পালন করে যাচ্ছেন।

গত ৩০ সেপ্টেম্বর প্রথম এ ব্যাপারে সংবাদ সম্মেলন করেন তারা। পরে বিএনপির তকমা ঢাকতে ও নিজের পদ রক্ষার্থে ওই সবুজ মিয়া ৯অক্টোবর কেন্দুয়া প্রেসক্লাবে চ্যালেঞ্জ করে বলেন, “আমি বিএনপি সমর্থিত প্রমাণ করতে পারলে রাজনীতি ছেড়ে দেব।”

সবুজ মিয়ার এ চ্যালেঞ্জের দুই দিন পর শুক্রবার সে বিএনপির লোক চ্যালেঞ্জ গ্রহন করে ক্ষুব্ধ আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা তাকে সভাপতি পদ থেকে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে।

মানববন্ধনে কান্দিউড়া ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সদস্য মতি মিয়া, ওয়ার্ড কমিটির সাবেক সাধারন সম্পাদক সামছুল আলম, ওয়ার্ড কমিটির সদস্য আব্দুল হাই, ইউনিয়ন যুবলীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক নুরুজ্জামান শেখ, ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি হুমায়ুন কবিরসহ এলাকার শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, গত ৪সেপ্টেম্বর কান্দিউড়া ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসেবে বিএনপি পন্থী সবুজ মিয়া এবং সাধারন সম্পাদক হিসেবে মাহবুবুর রহমান ঝান্টু মনোনীত হন।

মনোনীত কমিটির সভাপতি সবুজ মিয়া বিএনপি পন্থী হওয়ায় তার পদ বাতিল চেয়ে ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ উপজেলা, জেলা ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের নিকট অভিযোগ দাখিলসহ সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করেছে। তাকে পদ থেকে বাতিল না করা পর্যন্ত তাদের কর্মসূচী চলমান রাখবেন বলে তারা জানিয়েছেন।