| |

Ad

ইউপি সদস্য আব্দুল মান্নানের কান্ড

আপডেটঃ 1:45 pm | September 16, 2019

শেরপুর থেকে মনিরুজ্জামান মনির: শেরপুর জেলার শ্রীবরদী উপজেলার ০৪ নং তাঁতী হাটি ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মৃত- ফজল হকের ছেলে আব্দুল মান্নানের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অনিয়ম ও দূর্নীতির অভিযোগ পাওয়া গেছে। অভিযোগ সূত্রে জানা যায় সে এলাকার একজন দুর্ধর্ষ খারাপ প্রকৃতির লোক। এলাকায় এমন কোন অপকর্ম নেই যে তার দ্বারা সংগঠিত হয় না। সে একজন ইয়াবা বিক্রেতা, সে এলাকার বাসিন্দা হলেও কৌশলে গুচ্ছ গ্রামে বসবাস করে মাদক বিক্রয় ও নিয়ন্ত্রণ করে। তার ছত্র ছায়ায় এলাকা মাদক বিক্রির একটি সিন্ডিকেট তৈরি হয়েছে। সে সিন্ডিকেটের মাধ্যমে সে ইয়াবাসহ নানা ধরনের মাদক বিক্রয় ও অপকর্ম করে থাকে। সে এলাকায় বলে বেড়ায় শ্রীবরদী থানার ওসিকে ম্যানেজ করে আমি এইসব করে থাকি। আমাকে ধরার বা বাধা দেওয়ার শক্তি কারোর নেই। তার এইসব অপকর্মে কেউ বাধা দিতে গেলে উল্টো তাকেই মাদক মামলায় ফাসানোর হুমকি দিয়ে থাকে। তাঁতি হাটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান বিল্লাল হোসেন একাধিক বার শালিস বৈঠক করেও তার অপকর্মের কোন সমাধান দিতে পারে নাই। সে ইউনিয়ন পরিষদ হতে বঞ্চিত খারাপ অপকর্মের জন্য তাকে ইউনিয়ন পরিষদে ঢুকতে দেওয়া হয় না। নাম প্রকাশ না করা শর্তে কয়েক জন এলাকাবাসী জানায় শালীস বৈঠকে তাকে ডাকলে টাকা ছাড়া সে বৈঠকে উপস্থিত হয় না এবং কি যে পক্ষে তাকে টাকা দিবে সেই পক্ষেই তার রায় আসে এমনকি কয়েকদিন আগে এক মুক্তিযোদ্ধার বাড়ি-ঘর ভেঙে দিয়েছে। এলাকার সচেতন নাগরীক তার এমন অপকর্মে এবং মাদক বিক্রি করে এলাকার কমুলনতি ছেলেদের ক্ষতির হাত থেকে বাঁচানোর জন্য প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা করেছে