| |

Ad

ঝিনাইগাতীতে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে চাল পেলেন শতাধিক অসহায় পরিবার

আপডেটঃ 12:44 pm | August 09, 2019

এসএম নয়ন, ঝিনাইগাতী প্রতিনিধি:শেরপুরের ঝিনাইগাতীতে ইউএনও’র হস্তক্ষেপে ভিজিএফ’র চাল পেলেন শতাধিক অসহায় পরিবার। জানা যায়, ৭ আগস্ট বুধবার উপজেলার কাংশা ইউনিয়নে ভিজিএফ’র চাল বিতরণ করা হয়।

১হাজার ২৮২জন কার্ডধারীর মধ্যে বিতরণ করা হয় চাল। ১৫ কেজি করে চাল বিতরণের কথা থাকলেও বিতরণ করা হয় ১০/১২ কেজি করে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে তদারকি কর্মকর্তার দায়িত্বে ছিলেন উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা সিরাজুস সালেহীন। চাল বিতরণে ওজনে কারচুপির বিষয়টি অবগত হন উপজেলা নির্বাহী অফিসার।

তিনি ঘটনাস্থলে আসার সংবাদে ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল হক গ্রাম পুলিশ দিয়ে অনিয়মের আলামত নষ্টের চেষ্টা করেন। বিতরণকৃত চাল এনে যাতে ওজন করতে না পারেন এ উদ্দেশ্যে সুবিধাভূগীদের গ্রাম পুলিশ দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করতে বাধ্য করেন। স্থানীয়রা জানান, প্রমাণ লুপাটের সার্থে গুদামে রক্ষিত অতিরিক্ত বেশকিছু চালও তিনি সরিয়ে ফেলেন। নির্বাহী অফিসার ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে বিলম্ব হওয়ায় ইউপি চেয়ারম্যান অনেকটাই প্রমাণ লুপাটের সুযোগ পান।

পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবেল মাহমুদ ঘটনাস্থলে আসেন। তিনি এসে দেখতে পান নির্ধারীত কার্ডধারীদের মাঝে চাল বিতরণের পরেও গুদামে অতিরিক্ত চাল রয়েছে। এতে প্রতিয়মান হয় চাল বিতরণে ওজনে কারচুপির বিষয়টি।

এসময় ভিজিএফ কার্ড পাননি এমন উপস্থিত শতাধিক অসহায় পরিবারের মাঝে অতিরিক্ত চালগুলো বিতরণ করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবেল মাহমুদ। চাল পেয়ে নির্বাহী অফিসারের প্রতি খুশিতে আত্মহারা ওই শতাধিক পরিবার। ইউপি চেয়ারম্যান জহুরুল হক ওজনে কারচুপির বিষয়টি অস্বীকার করেছেন। নির্বাহী অফিসার রুবেল মাহমুদ অতিরিক্ত চাল অসহায় পরিবারের মাঝে বিতরণের বিষয় নিশ্চিত করেছেন।