| |

Ad

ফ্রান্সে প্রাণঘাতী পারিবারিক সহিংসতার বিরুদ্ধে বিক্ষোভ

আপডেটঃ ১১:৫৬ পূর্বাহ্ণ | জুলাই ০৮, ২০১৯

এনএনবি : নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে সচেতনতা বাড়ানো এবং গৃহে নারীদের হত্যার শিকার হওয়া রোধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার দাবিতে ফ্রান্সের রাজধানী প্যারিসে শত শত মানুষ বিক্ষোভ করেছে।
শনিবারের ওই বিক্ষোভে সমাবেশে বিক্ষোভকারীরা ‘যথেষ্ট হয়েছে’ এবং ‘নারী হত্যা বন্ধ করুন’ বলে স্লোগান দেয়। তাদের অনেকের হাতে ‘বিশ্বে নারীদের বেঁচে থাকা প্রয়োজন’ লেখা প্ল্যাকার্ড ছিল।
নারী অধিকার সুরক্ষা নিয়ে কাজ করা কয়েকটি এনজিও প্লেস দে লা রিপাবলিক স্কয়ারে ওই বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করে। সব বয়সের নারী এবং কয়েকজন পুরুষও বিক্ষোভে অংশ নেন।
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে একটি গ্রুপের দেওয়া তথ্যানুযায়ী, এ বছর এখন পর্যন্ত ফ্রান্সে ৭৪ জন নারীকে শুধুমাত্র নারী হওয়ার কারণে হত্যা করা হয়েছে। যাকে ‘ফেমিসাইড’ বলা হয়। ওই সব নারীকে তাদের স্বামী বা সঙ্গীর হাতে প্রাণ দিতে হয়েছে।
নিহত ওই ৭৪ জনের স্মরণে ৭৪ সেকেন্ড নিরবতা পালনের মধ্য দিয়ে বিক্ষোভ সমাবেশ শুরু হয়।
ফ্রান্সের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণলয়ের দেওয়া তথ্যানুযায়ী, ২০১৭ সালে দেশটিতে ১৩০ জন নারীকে তাদের স্বামী বা সঙ্গী হত্যা করে। ২০১৬ সালে এই সংখ্যা ছিল ১২৩।
‘একে নির্বিচার হত্যাকা-’ আখ্যা দিয়েছেন বিক্ষোভে অংশ নেওয়া এক অভিনেত্রী এবং সাবেক ফরাসি প্রেসিডেন্ট ফ্রাঁসোয়া ওঁলাদের এক সময়কার সঙ্গী।
তিনি বলেন, “আজকের দিনে যা ঘটছে সে সম্পর্কে আমাদের সচেতনতা তৈরি করা প্রয়োজন। সমাজে বিবর্তন ঘটারে পরও এ সমাজ এখনো অনেক পিছিয়ে আছে, এমনকী আজ আরো বেশি নারী মারা পড়ে