| |

Ad

বরিশালে বিক্রির জন্য মরা গরুর মাংস মজুদ: আটক ৫

আপডেটঃ 2:33 pm | July 02, 2019

মরা গরু জবাই করে বিক্রির জন্য মজুদ রাখার অভিযোগে পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ। আটককৃত দুইজনকে ভ্রাম্যমান আদালতের মাধ্যমে জরিমানা করা হয়েছে। অন্যান্যরা ঘটনার সাথে জড়িত না থাকায় তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার দিবাগত মধ্যরাতে জেলার গৌরনদী উপজেলার বার্থী ইউনিয়নের কটকস্থল এলাকায়।
গৌরনদী মডেল থানার ওসি গোলাম সরোয়ার জানান, সোমবার রাতে মরা গরু জবাই করে বিক্রির জন্য মজুদ রাখার গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কটকস্থল এলাকা থেকে মজুদ রাখা মাংসসহ গরুর মালিক আলী আহমেদ সরদার ও মজুদকারী মাংস বিক্রেতা খোকন সরদারসহ পাঁচজনকে আটক করা হয়। এরমধ্যে মূল দুই অভিযুক্তকে ওইদিন রাতেই ভ্রাম্যমান আদালতের কাছে সোর্পদ করা হয়। অন্য তিনজন ঘটনার সাথে জড়িত না থাকায় তাদের ছেড়ে দেয়া হয়েছে।
উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক ফারিহা তানজিন জানান, কসাইখানার লাইসেন্স ও গরু জবাইয়ের জন্য ভেটেনারী সার্জনের ছাড়পত্র না থাকার বিষয়টি আমলে নিয়ে মাংস বিক্রেতাকে ২৫শ’ টাকা এবং গরুর মালিক অসুস্থ গরু বিক্রি করায় তাকে ২৫শ’ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়াও মাংসগুলোকে ভেটেনারী সার্জন ডাঃ মাসুম বিল্লাহর মাধ্যমে ধ্বংস করা হয়েছে। তিনি আরও জানান, জবাইয়ের আগে গরু মৃত ছিলো কিনা বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার জন্য গরুর মাংসের নমুনা সংগ্রহ করে মঙ্গলবার সকালে ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানো হয়েছে।
এই প্রথম ল্যাবে গেল গরুর মাংস ॥ জবাইয়ের আগে গরু দুইটি জীবিত না মৃত ছিলো সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নে গরুর মাংস ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক। গৌরনদীতে এই প্রথম গরুর মাংস ফরেনসিক ল্যাবে পাঠানো হয়েছে। তাই উপজেলা প্রশাসনের সিদ্ধান্তকে সাধুবাদ জানিয়েছেন সচেতন উপজেলাবাসী।