| |

Ad

পাকিস্তানের সঙ্গে ৯২ বিশ্বকাপের ‘ভূত’ ঘুরছে

আপডেটঃ 1:20 pm | June 30, 2019


এফএনএস স্পোর্টস: আফগানিস্তানকে হারিয়ে বিশ্বকাপ পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষ চারে উঠে এসেছে পাকিস্তান। কালকের ম্যাচেও ১৯৯২ বিশ্বকাপের স্মৃতি ফিরিয়ে আনার পথে হেঁটেছে সরফরাজ আহমেদের দল পাকিস্তান যা ঘটিয়ে চলছে তা বিশ্বাস করা সত্যিই খুব কঠিন। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে জঘন্য হার দিয়ে বিশ্বকাপ শুরু করেছিল পাকিস্তান। এরপর ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জিতলেও অস্ট্রেলিয়া ও ভারতের কাছে হারে কোণঠাসা হয়ে পড়েছিল সরফরাজ আহমেদের দল। এখান থেকে ঘুরে দাঁড়িয়ে পাকিস্তান এখন টেবিলের শীর্ষ চারে। দলটির সমর্থকেরা রব তুলেছেন, সরফরাজের দল, ১৯৯২ বিশ্বকাপের স্মৃতি ফিরিয়ে আনছে। সেবার চ্যাম্পিয়ন হয়েছিল পাকিস্তান। এবার তার পুনরাবৃত্তি ঘটবে কি না তা সময়ই বলে দেবে। তবে সরফরাজের দল আপাতত ১৯৯২ বিশ্বকাপের সঙ্গে অবিশ্বাস্য কাকতাল ধরে রেখেছে। ’৯২ বিশ্বকাপের ‘ভূত’ দেখা গেছে কাল আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচেও।
লিডসে কাল আফগানিস্তানকে ৩ উইকেটে হারিয়েছে পাকিস্তান। গ্রুপপর্বে ৮ম ম্যাচ শেষে সরফরাজদের ঝুলিতে জমা পড়েছে ৪ জয়, ৩ হার আর ১টি নো-রেজাল্ট (বৃষ্টির জন্য)। ১৯৯২ বিশ্বকাপেও অষ্টম ম্যাচ শেষে ঠিক একইসংখ্যক হার-জিত ছিল পাকিস্তানেরÑ৪ জয়, ৩ হার ও ১টি নো-রেজাল্ট (বৃষ্টির জন্য)। সেবার অষ্টম ম্যাচে পাকিস্তানের প্রতিপক্ষ ছিল নিউজিল্যান্ড। কালকের ম্যাচের মতো ২৭ বছর আগের ম্যাচেও পরে ব্যাট করেছিল পাকিস্তান। শুধু তাই নয় মিল আছে আরও।
কিউইদের বিপক্ষে সে ম্যাচে কোনো রান তোলার আগেই প্রথম ওভারে উইকেট হারিয়েছিল ইমরান খানের দল। আফগানিস্তানের বিপক্ষেও প্রথম ওভারে কোনো রান তোলার আগে উইকেট হারিয়েছে সরফরাজের দল। পার্থক্য শুধু নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওই ম্যাচটা বেশ সহজেই জিতেছিল পাকিস্তান, যা হয়নি আফগানিস্তানের বিপক্ষে। মজার ব্যাপার, বিশ্বকাপে কোনো ম্যাচে রান তোলার আগেই প্রথম ওভারে উইকেট হারিয়ে পাকিস্তান যে দুটি ম্যাচ জিতেছে তা ২৭ বছর আগের নিউজিল্যান্ড আর কালকের আফগানিস্তান ম্যাচ।
নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সে ম্যাচে ৪ উইকেট নিয়েছিলেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি পেসার ওয়াসিম আকরাম। বাঁ হাতি এ পেসারের পথে হেঁটেই কাল আফগানিস্তানের বিপক্ষে ৪ উইকেট নেন পাকিস্তানের উঠতি বাঁ হাতি পেসার শাহিন আফ্রিদি। সত্যি এতটা মিল বিশ্বাস করাই কঠিন।
আফগানিস্তান ম্যাচের আগেও ’৯২ বিশ্বকাপের পথে হেঁটেছে পাকিস্তান। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে গ্রুপপর্বে নিজেদের সপ্তম ম্যাচটি ৪৯.১ ওভারে জিতেছিল সরফরাজের দল। ’৯২ বিশ্বকাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সপ্তম ম্যাচটিও পাকিস্তান জিতেছিল ৪৯.১ ওভারে। আর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সে ম্যাচে রানআউট হয়েছিলেন ইনজামাম-উল হক। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে রানআউট হয়েছেন হারিস সোহেলও। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কদিন তাই বেশ রসিকতা চলছে, হারিস সোহেল যেন নতুন ইনজামাম!