| |

Ad

বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে ময়মনসিংহের কৃতি সন্তান শেখ সাঈদ আনোয়ার সিজারকে উপ সমাজসেবা সম্পাদক নিয়োজিত করায় অভিনন্দন

আপডেটঃ ৬:২৩ পূর্বাহ্ণ | মে ১৪, ২০১৯

স্টাফ রিপোর্টার ॥ বাংলাদেশ ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কার্য নির্বাহী কমিটিতে ময়মনসিংহের কৃতি সন্তান শেখ সাঈদ আনোয়ার সিজারকে উপ সমাজসেবা  সম্পাদক নিয়োজিত করা হয়েছে। শেখ সাঈদ আনোয়ার সিজার দীর্ঘদিন যাবৎ ছাত্রলীগের সাথে জড়িত রয়েছেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মেধাবী ছাত্র শেখ সাঈদ আনোয়ার সিজার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সাহিত্য বিষয়ক উপ সম্পাদক ছিলেন। তার গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহের তারাকান্দা উপজেলার চরপাড়া গ্রামে। তার পিতা অধ্যক্ষ মোঃ জামাল উদ্দিন, আওয়ামী লীগের একজন বলিষ্ঠ নেতা। শিক্ষানুরাগী ব্যক্তি হিসাবে তার সুপরিচিতি রয়েছে। পিতার পদাঙ্ক অনুসরন করে শেখ সাঈদ আনোয়ার সিজারের রাজনীতিতে অনুপ্রবেশ ঘটে। ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে উপ সমাজসেবা বিষয়ক সম্পাদক নিযুক্ত করায় ময়মনসিংহের তারাকান্দাসহ বিভিন্ন উপজেলায় ও ময়মনসিংহ সিটি এলাকায় আনন্দ উৎচ্ছাস চলছে। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি, সাধারণ সম্পাদক এর  কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে ময়মনসিংহ বিভিন্ন স্তরের ব্যক্তিবর্গ অভিনন্দন জানিয়েছেন। অভিনন্দন বার্তায় নেতৃবৃন্দের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করে  শেখ সাঈদ আনোয়ার সিজারের উত্তরোত্তর সমৃদ্ধি কামনা করেছেন। ময়মনসিংহস্থ তারাকান্দা সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব মোঃ আবু বক্কর সিদ্দিক এডভোকেট ও সাধারণ সম্পদাক অধ্যাপক হাবিবুর রহমান এক বিবৃতিতে কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। স্বাশিপ ময়মনসিংহ জেলা শাখার সভাপতি অধ্যক্ষ মোঃ আব্দুর রফিক, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মোঃ আফতাব উদ্দিনসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ স্বাশিচ পরিবারের সন্তান শেখ সাঈদ আনোয়ার সিজারকে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কমিটিতে নিযুক্ত করায় সংশ্লিষ্ট সকলকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। ময়মনসিংহ রাইটার্স ইউনিটির সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক সকালের দুনিয়ার নির্বাহী সম্পাদক মোঃ আব্দুল হাফিজ ও বার্তা সম্পাদক মোশাররফ হোসেন খসরু এক বিবৃতিতে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটিতে যোগ্য ছাত্র নেতাকে উপ সমাজসেবা সম্পাদক নিযুক্ত করায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও ছাত্রলীগের সভাপতি, সম্পাদককে ধন্যবাদ জানিয়ে নব গঠিত পূর্ণাঙ্গ কমিটি ছাত্রলীগের সুনাম বয়ে আনবে বলে এ আশাবাদ ব্যক্ত করেন।