| |

Ad

পুত্র হত্যার বিচার চেয়ে মায়ের সংবাদ সম্মেলন ফুলবাড়িয়ায় ৮ মাসেও কলেজ ছাত্র হত্যা রহস্য উৎঘাটন হয়নি

আপডেটঃ 8:36 am | April 07, 2018

ফুলবাড়িয়া ( ময়মনসিংহ) প্রতিনিধিঃ । গতকাল শুক্রবার সকালে কুশমাইল ইউনিয়নের বরুকা তালতলা বাজারে পুত্র হত্যার বিচার চেয়ে সংবাদ সম্মেলনে বারবার মুর্ছে যাচ্ছেন ফুলবাড়িয়া ডিগ্রি কলেজের দ্বাদশ শ্রেনীতে পড়–য়া একমাত্র সন্তান হারা মা। কান্নায় শোকে ভারী হয়ে উঠছে আশপাশের পরিবেশ ।ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার কুশমাইল ইউনিয়নের বরুকা টানপাড়া গ্রামের মেধাবী ছাত্র আফজাল হোসেন তাজু হত্যাকান্ডের প্রায় ৮ মাস পেড়িয়ে গেলেও হত্যা রহস্য উদঘাটন হয়নি।সাংবাদিক সম্মেলনে নিহতের মা লাইলী বেগম বলেন, জমি সংক্রান্ত বিরোধ চলে আসছিল একই গ্রামের নজরুল ইসলামগংদের সাথে। হত্যাকান্ডের কিছুদিন পূর্বে আমার পুত্রের মৎস্য খামারের ২ লাখ টাকার মাছ মেরে নিয়ে যায়, কাঠাল গাছ কেটে ফেলে বাড়িতে এসে হত্যার হুমকী দেয় আফজালকে। এ ঘটনার ৩ দিন পর গত ১৬ আগষ্ট ২০১৭ ইং রাতে কলেজ ছাত্র তাজুর সাথে মা খাবার খেয়ে ঘরে যায়। কিছুক্ষন পর দু’জন এসে পুত্র আফজালকে ডেকে নিয়ে বাইরে চলে যায়। পরদিন ভোরে ঘুমথেকে উঠেদেখে পুত্র আফজাল বিছানায় নেই, তার ঘরের দরজা খোলা। একদিন পর ১৮ আগষ্ট বাড়ির পাশ্বে পুকুরে পাওয়া যায় আফজালের লাশ। ১৯ আগষ্ট মা লাইলী বেগম বাদি হয়ে নজরুল ইসলামসহ ১১জনকে অজ্ঞাত আরো ৩/৪জনকে আসামী করে ফুলবাড়িয়া থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। সংবাদ সম্মেলনে মামলার বাদি মা জানান, ফুলবাড়িয়া থানায় হত্যা মামলা দায়েরের দুই মাস যেতে না যেতেই রহস্যজনক কারনে মামলাটি সিআইডিতে স্থানান্তর করে ফুলবাড়িয়া থানা পুলিশ। সংবাদ সম্মেলনে স্থানীয় সাবেক ইউপি সদস্য সুরুজ্জামানসহ স্খানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।মামলার তদন্তকারী সিআইডি কর্মকর্তা রুপক সরকার বলেন, প্রায় ৬মাস যাবত মামলা হাতে পেয়েছি, ৩জন গ্রেফতার রয়েছে ৭জন আত্বসমর্পন করেছে। মামলাটির তদন্ত চলছে।