| |

Ad

জিল বাংলা চিনিকলের উৎপাদন বন্ধ

আপডেটঃ 5:28 am | March 13, 2018

দেওয়ানগঞ্জ থেকে রুহুল আমিন : মাড়াই লক্ষমাত্রার কাছাকাছি গেলেও জিল বাংলা চিনিকলে এবারো চিনি উৎপাদন লক্ষমাত্রা অর্জিত হয়নি। চলতি মাড়াই মৌসুমে ১০২ দিবসে ৮২ হাজার ৭২৫ মেট্রিক টন আঁখ মাড়াই করে ৫ হাজার ৫২৫ মেট্টিকটন চিনি উৎপাদন করে সোমবার জিল বাংলায় উৎপান বন্ধ হয় বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। ভয়াবহ বন্যার কারনে আঁেখর ফলন ভালো হয় নি। এ জন্য চিনি আহরণের হার কমে যাওয়ায় চিনি চিনি উৎপাদন লক্ষমাত্রা অর্জিত হয়নি। জিল বাংলা চিনিকলের এমডি এস এম নুরুল হুদা জানান, চলিত মাড়াই মৌসুমে চিনি কলের ধার্যকৃত লক্ষমাত্রা অনুযায়ী ৯০ হাজার মেট্টিক টন আঁখ মাড়াই করে ৮শতাংশ রিকোভারিতে চিনি উৎপাদন লক্ষমাত্রা ছিল ৮হাজার ৩২মেট্টিক টন। রিকোভারি অর্জিত হয়েছে ৬ দশমিক ৭১ শতাংশ। চলতি মৌসুমে চিনি কলটিতে যান্ত্রিক গোলযোগের কারনে মোট ১৩৫ঘন্টা আঁখ মাড়াই বন্ধ ছিল। সংশ্লিষ্ট সূত্রে আরও জানা গেছে, এবারের পর পর ২ বার ভয়াবহ বন্যায় অনেক আখের ক্ষতি হওয়ার কারণে মিলটিতে চিনি উৎপাদন লক্ষমাত্রা অর্জিত হয়নি। সিবিএ নেতা জানান আঁখের সাথে চিনি মূল্য অসামঞ্জস্যপূর্ণ হওয়ায় মিলটিতে অন্যতম লোকসানের আরেক কারণ। তিনি জানান, প্রতি কেজি চিনির উৎপাদন খরচ পড়ে ১৪০ টাকা। প্রতি কুইন্টাল আঁখের দাম ৩২০ টাকা। আর প্রতি কুইন্টাল আঁখ মাড়াই করে চিনি উৎপাদন হয় ৭ কেজির ওপরে। সে হিসাবে প্রতি কুইন্টাল আঁখ মাড়াই করে ৭ কেজি চিনির উৎপাদন খরচ পড়ে ৯৮০ টাকা।